প্রশ্নের উত্তর (FAQ)

“DSNOC সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তর”

1DSNOC বা ঢাকা সাউথ নেটওয়ার্ক ওনার্স কমিউনিটি কি?
DSNOC বা Dhaka South Network Owner's Community হচ্ছে, ইন্টারনেট ব্যবসার বা IT ব্যবসায়ের সাথে জড়িত প্রতিষ্ঠানসমূহের একটি কমিউনিটি। Digital Bangladesh গড়ে তোলার লক্ষ্যে বা IT কাজের সাথে সম্পর্কযুক্ত যেকোনো ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানী যাদের মূল সেবা হচ্ছে ইন্টারনেট সেবা প্রদান (ISP), কম্পিউটার প্রশিক্ষণ (TSP), IT সম্পর্কিত পণ্য ক্রয়-বিক্রয় ইত্যাদি DSNOC এর সদস্য হতে পারবে। এক কথায়, DSNOC হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে IT সেবা প্রদান করেন এমন প্রতিষ্ঠানদের সম্মিলিত একটি কমিউনিটি।
2DSNOC এর সদস্য কে কে হতে পারবে?
আমাদের এই কমিউনিটিতে ০২ ধরনের সদস্য হয়ে থাকেন। যথা- (১) সাধারন সদস্য (General Member) ও (২) সহযোগী সদস্য (Associate Member)। আপনি যদি ইন্টারনেট সেবা প্রদান করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি সাধারন সদস্য হিসেবে অংশগ্রহন করতে পারবেন। অপরদিকে যদি ইন্টারনেট ব্যবসায়ী বাদে যেকোনো আইটি পন্য বা সেবা প্রদান করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি সহযোগী সদস্য হিসেবে অংশগ্রহন করতে পারবেন।
3DSNOC এর সদস্য হতে হলে কি কি প্রয়োজন?
DSNOC এর সদস্য হওয়ার জন্য আপনার ব্যবসা বা প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স, ইন্টারনেট ব্যবসায়ী হলে বিটিআরসি লাইসেন্স, প্রোপ্রাইটর এর জাতীয় পরিচয় পত্রসহ সবগুলোর ১টি করে ফটোকপি জমা দিতে হবে। সেই সাথে আপনার সদ্যতোলা ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিণ ছবি জমা দিয়ে সরাসরি আমাদের অফিসে এসে ফরম পূরনের মাধ্যমে সদস্য পদ গ্রহন করতে পারেন। এছাড়াও অনলাইনে DSNOC এর অফিসিয়াল ওয়েব সাইটের মাধ্যমে আপনি সদস্যফরম পূরণ করতে পারেন (Link: https://dsnoc.org/registration/)।
4আমি কেন DSNOC এর সদস্য হবো?
আপনি যদি স্থায়ীভাবে ইন্টারনেট ব্যবসায়ী হতে চান তাহলে আপনার জন্য DSNOC এর সদস্য হওয়া একান্ত প্রয়োজন। পেশাদার ব্যবসায়ীরা নিজ নিজ ব্যবসায়িক সেক্টরের কমিউনিটির সদস্য হয়ে থাকেন। কমিউনিটির সদস্য না হলে এলাকা ভিত্তিক কোনো সমস্যায় পড়লে, ব্যবসায়ীক নিরাপত্তা বা কমিউনিটির পক্ষ থেকে কোনো ধরনের সহযোগীতা আপনি পাবেন না এবং ইন্টারনেট গ্রাহকের নিকট আস্থার অভাববোধ করবেন। ইন্টারনেট ব্যবসায়ের কিছু সরকারী বেসরকারী সুযোগ-সুবিধা আছে, সেদিক থেকে বঞ্চিত হতে পারেন। সরকার প্রত্যেকটি ব্যবসায়িক খাতে নীতি প্রণয়ন করার জন্য কমিউনিটির পরামর্শ নিয়ে থাকেন। কমিউনিটির সাথে একত্রিত হলে এসব জায়গায় নিজেদের পরামর্শ দিতে পারবেন। এছাড়াও আপনার প্রতিষ্ঠানের বিটিআরসি লাইসেন্স, সিকিউরিটির জন্য লগ সার্ভার, ভ্যাট, ট্যাক্স, APNIC এর IP পাওয়া, ডোমেইন-হোস্টিং ও ওয়েব সাইট তেরী, বিলিং ও ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারসহ সকল ধরনের সহযোগীতা আমরা DSNOC এর পক্ষ থেকে প্রদান করে থাকি। এলাকার সন্ত্রাসী বা প্রভাবশালী ব্যক্তিদের দখল থেকে আপনার ব্যবসায়ের নিরাপত্তার জন্য আমরা সকলে মিলেমিশে এগিয়ে আসি। রাস্তা হতে ক্যাবল, বক্স, ডিভাইস ইত্যাদি চুরির বিরুদ্ধে পরামর্শ ও যথাযথ ব্যবস্থা আমরা কমিউনিটিতে একত্রিত হয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করে থাকি। এছাড়াও ব্যবসায় সম্পর্কিত অন্যান্য সমস্যার সমাধানের জন্য আমরা কাজ করে থাকি।
5DSNOC সদস্য হতে কত দিন প্রয়োজন?
আপনার আবেদনের পর সবকিছু ঠিক হলে ২ কার্যদিবসের মধ্যেই আপনি DSNOC এর সদস্য হতে পারবেন।
লগ ইন